বিষমকামী-সমকামী অনবচ্ছেদ বা যৌন অনবচ্ছেদ

বিষমকামী-সমকামী অনবচ্ছেদ বা যৌন অনবচ্ছেদ (ইংরেজি: heterosexual-homosexual continuum বা sexual continuum) মানব যৌনতার ক্ষেত্রে একটি মনস্তাত্ত্বিক ও দার্শনিক ধারণা। এই ধারণায় যৌন অভিরুচিকে বিষমকামিতা থেকে সমকামিতার মধ্যে স্থিত একটি অনবচ্ছেদ ব্যবস্থায় স্থাপন করা হয়। ১৯৪০-এর দশকে আলফ্রেড কিন্সের (ইংরেজি: Alfred Kinsey অ্যাল্‌ফ্রেড্‌ কিন্‌সি‌) একটি যৌনতা সমীক্ষা থেকে এই ধারণাটি উদ্ভুত হয়: কিনসির সমীক্ষার অনেক বিষয়ই বিভিন্ন পর্যায়ের উভকামিতার কথা বলে। উল্লেখ্য, এগুলিকে আগে কঠোরভাবে বিষমকামিতা/সমকামিতা বিভাগের অধীনে রাখা হতো। ফ্রিৎজ ক্লেইন এই বিষয়ে আরও গবেষণা চালান। তিনি যৌন প্রবৃত্তিকে একটি সক্রিয়, বহুপরিবর্তনশীল প্রক্রিয়া, আকর্ষণজনিত, আচরণ, কল্পনা বা ফ্যান্টাসি, আবেগ সংক্রান্ত, এবং একটি সামাজিক অভিরুচি, আত্ম-পরিচিতি, ও জীবনযাত্রা বলে ধরে নিয়েছিলেন। ১৯৭০ ও ১৯৮০-এর দশকের নারীবাদী ও সমকামী অধিকার আন্দোলনে এই ধারণাটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়। কারণ, বিশেষজ্ঞ মহল ও আন্দোলনের নেতৃস্থানীয়েরা শারীরিক লিঙ্গের (যেমন, পুরুষ বা স্ত্রী) বদলে সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মনস্তাত্ত্বিকতার ভিত্তিতে লিঙ্গ ও যৌনতার শ্রেণীবিভাগে উদ্যোগী হন। আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের মতে:

যৌন প্রবৃত্তি অন্যের প্রতি এক স্থায়ী আবেগ, প্রণয়, যৌন ও স্নেহ সম্পর্কিত আকর্ষণ। জীববৈজ্ঞানিক যৌনতা, লিঙ্গ পরিচয় (পুরুষ বা স্ত্রী হওয়ার মনস্তাত্ত্বিক চেতনা) এবং সামাজিক লিঙ্গ ভূমিকা (পুরুষালি ও মেয়েলি আচরণের সাংস্কৃতিক প্রথার প্রতি আনুগত্য) – যৌনতার এই সব উপাদানের থেকে তাকে সহজেই পৃথক করা যায়।

যৌনপ্রবৃত্তি একটি অনবচ্ছেদে বিভিন্ন উভকামিতা-বিষয়ক উপবর্গ সহ একান্তভাবে বিষমকামী থেকে একান্তভাবে সমকামী বিষয়শ্রেণী সহকারে অবস্থান করে।

সাধারণভাবে এই শব্দটি বা এর কোনো অনুরূপ পাঠান্তর যৌন প্রবৃত্তি সংক্রান্ত গবেষণায় ব্যবহৃত হয়। তবে সংখ্যাগরিষ্ঠ বিষমকামী যৌনপ্রবৃত্তির বাইরে অন্যান্য যৌনতাকে (যেমন উভকামিতা, রূপান্তরকামিতা কিংবা সমকামিতা)কে অনেক সময় সমান্তরাল যৌনতা (parallel sex) নামেও অভিহিত করা হয়।

আজকাল, অনেক যৌনতত্ত্ববিদ এই মাপকাঠি এবং কিন্সে মাপকাঠিটিকে অতিসরল মনে করে থাকেন। “তাঁদের মতে যৌন প্রবৃত্তি ও যৌন পরিচয়ের বিষয়টি আরও জটিল ও বৈচিত্র্যপূর্ণ হওয়া উচিৎ।”

2 thoughts on “বিষমকামী-সমকামী অনবচ্ছেদ বা যৌন অনবচ্ছেদ

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s