শিকার – মৃন্ময় এর লেখা অনুগল্প

আমি সমকামি তরুন ,সমপ্রেমি না , সমকামি ।
আমিও হাসিমুখে আমার নরম জমিতে তাদের কঠিন লাংগল উপভোগ করি , নিজেকে বিলিয়ে দেওয়ার আনন্দ।
সমাজের চোখে আমি নষ্ট, এখনতো কেও আর ভালবাসতেও চায় না ।

একসময় আমি এতো নষ্ট ছিলাম না , জানেন?
ওই যে, যখন আমি খুব সুন্দর একটা শিশু ছিলাম, সবাই দেখলেই গাল টেনে দিত , কোলে নিত …
তখন ভয় পেতাম মানুষ কে , আম্মুর কোলে ছাড়া ঘুমাতাম না
বাবার সাথে ঘুরতে যেতাম , টম এন্ড জেরী দেখে হেসে কুটিকুটি হতাম , দাদিমার সাথে সুর করে গাইতাম ‘আম পাপাই দ্য সেলর ম্যান ‘ কি সুন্দর একটা লাইফ !

হঠাত একদিন পাশের বাসায় এসে উঠল ছয় বিদেশি, অবশ্য আমরাও সেদেশে বিদেশি ।
পাশের বাসার ছয় বিদেশি আমার জীবনটাই বদলে দিল. ..
সুন্দর চেহারার লম্বা পুরুষ তারা , ভুমধ্যসাগর তীরের যুবক, দেবদূতের মত গঠন।
আমার ভাল লাগত না তাদের চোখের অদ্ভুত কোন ভাষা, কেন জানি তাদের ভয় পেতাম, হয়ত তাদের চোখেই লেখা ছিল ‘ সাবধান! বিপদ!! ‘
ছোটরা অনেক কিছু বুঝতে পারে কথাটা পুরোপুরি ভুল নয় ।

তারা শুধু চকোলেট খেতে দিত, মাঝে মাঝে ললিপপ ।
আমার ভাল লাগত না,একদম না।
আমি হাত পা ছুড়তাম তারা কোলে নিতে গেলে ।
বাবা অবাক হতেন, মা বিরক্ত হতেন।
মা ভাবত , বিদেশি হলেও মানুষ গুলা কত ভাল !
সেজন্যই একদিন বাবা মা আমাকে তাদের হাতে রেখে চলে গিয়েছিল, কোন এক জরুরী কাজে ।

ঘরের বাইরে তখন তুষারঝড় শুরু হয়েছে । কিন্তু সেই প্রলয়ের রাতে আমার জীবনে ঘটে গেল আরেক ঝড় ।
সারারাত সেই কালরাতে ধর্ষিত হয়েছিলাম ছয় সুদর্শন যুবকের লিংগে । একজন ফুট ফুটে শিশুকে ধর্ষণ করে বিজয়ীর হাসি হেসে ওঠা শিক্ষিত কিছু ভদ্রমানুষের অট্টহাসিতে চাপা পড়ে গিয়েছিল সেই শিশুটির কান্না , অব্যক্ত ক্ষোভ আর নিজের অস্তিত্ব নিয়ে একরাশ লজ্জা । সেদিন ধর্ষিত হয়েছিল একটা স্বপ্ন , অংকুরে বিলীন হয়েছিল কারো পুরুষত্ব, ধর্ষিত হয়েছিল বিশ্বাস , পরাজিত হয়েছিল মানবিকতা এবং আমি ।

আজও আমি পরাজিত । পরাজিত আমার নিয়তি ।
আমার জন্য কোন ফেরেশতা আসেনি সেইরাতে , আসেনি কোন দেবদূত ।
তাই এখন আমি অসুরের অপেক্ষা করি , নিজের অসুরকে খুজে পাব বলে ।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s